,



এক সফল রক্তসৈনিকের নাম আরাফাত হোসাইন রাহেল

মোঃ রুবেল আহমদ, টাইমস ট্রিবিউন : মায়ের কাছ থেকে ভালো কাজের অনুপ্রেরণা নিয়ে বেড়ে উঠা ছোট সেই আরাফাত হোসাইন রাহেল আজ দেশের একজন অন্যতম রক্তযোদ্ধা। দেশের অসংখ্য মানুষের জন্য রক্তদাতা খুঁজে দিচ্ছেন তিনি। আরাফাত হোসাইন রাহেল ব্যাক্তিগত জীবনে এ পর্যন্ত ২৯ বার রক্ত দান করেছেন।

এই মানুষটি ১৯৮৮ সালে সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার মছকাপুর গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। ২ভাই ও ৩বোনের মধ্যে তিনি ৪র্থ। স্কুল জীবনের শুরু থেকে ভাল করার চেষ্টা করে আসেছেন তিনি। আতহারিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও সিলেট মদন মোহন কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন। আরাফাত হোসাইন রাহেল শুধু একজন রক্তযোদ্বা নন সেই সাথে একজন সাংবাদিকও। তিনি চাকরীর পাশাপাশি বিডিযোদ্ধা টুয়েন্টিফোর ডটকম’র বার্তা সম্পাদক হিসেবে কাজ করছেন ।

চাকরির পাশাপাশি কিভাবে মানুষের জন্য রক্ত দাতা খুঁজে দেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, “ইচ্ছা থাকলে সবই সম্ভব। সময় বের করা কঠিন হলেও কেন জানি আমার ভাগ্যের সাথে মিলে যায়। আমি নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করি। অনেক সময় কাঁকতালীয় ভাবে সব হয়ে যায়”। কাজের পাশাপাশি ছুটির দিন ও অবসর সময় কাটে কিভাবে জানতে চাইলে তিনি জানান, মানুষের উপকারে ব্যয় করি এই ছুটি গুলো।

সাধারণ মানুষের কাছে মহান মানুষ বলে আরাফাত হোসাইন রাহেল খ্যাত, তো এই খ্যাতির মূল কারন কি শুধু এই স্বেচ্ছাসেবী কাজ। উত্তরে হাসতে হাসতে বলেন হয়তোবা, তবে কাজের স্বীকৃতি হিসেবে নিজের কাছে অনেক ভালো লাগে যখন কোন জায়গায় নিজেকে পরিচয় করিয়ে দিতে হয় না। আমি পরিচয় দেয়ার আগেই অন্যরা আমার পরিচয় বলে। ব্যাপারটা অন্য রকম আনন্দের। তার এই মহৎ কাজকে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও সাপোর্ট করেন। আরাফাত হোসাইন রাহেল জানান রক্তদানে আগে কাছের মানুষকে সচেতন করতে হবে। তবেই অন্যরা সচেতন হবে।

সারাদিন অফিসের পাশাপাশি অনলাইনে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে রক্তদাতা খুঁজে বেড়ান তিনি। রক্তদান সম্পর্কিত বিভিন্ন গ্রুপে প্রতিনিয়ত পোস্ট করে চলছেন এই গুনী মানুষটি। মোবাইল ফোনে পরিচিত রক্তদাতাদের খুঁজেন। আর কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে নানা ধরনের পুরষ্কার অর্জন করেছেন তিনি। এছাড়া তিনি বিভিন্ন স্থানে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ পরীক্ষার ক্যাম্পেইন করেন।

অন্যদিকে তিনি প্রতিষ্ঠা করেছেন স্বপ্ন রক্তদান সমাজ কল্যাণ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ। কিভাবে প্রতিষ্ঠিত হল এই স্বেচ্ছাসেবী রক্তদানের ফাউন্ডেশন। তিনি জানান, ২০১৩ সালে স্বপ্ন ব্লাড ফাইটার্স সিলেট নামে একটা সামাজিক সংগঠন আমার বন্ধুদের নিয়ে প্রতিষ্ঠা করি। পরবর্তী সময় ২০১৬ সালে এই সংঠন পৃথক হয়ে স্বপ্ন রক্তদান সমাজ কল্যাণ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ নামে যাত্রা শুরু করি। আজ সংগঠনটির বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমের মাধ্যমে সারাদেশে এর কার্যক্রম চলছে। বর্তমানে এই সংগঠনের ঢাকা, চাঁদপুর, বরিশাল, কুমিল্লা, সিলেট সহ ১৩ টা শাখা নিয়ে আমাদের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া দেশের বাহিরে ফ্রান্সেও আমাদের এই সংগঠনের সামাজিক কার্যক্রম চলছে।

এই ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার অন্যতম অবদান মোজাক্ষির, আল আমিন, মঞ্জুর আল মামুন, মঈন খান, জয় রায় হিমেল, সুজিয়া আলী, আব্দুর রউফ, রুবেল আহমদ সহ আরো অনেকেই। আর সম্পূর্ণ নিজেদের টাকায় চলে এই ফাউন্ডেশন।

এদিকে আরাফাত হোসাইন রাহেল জানান, শতকষ্টের মাঝে হলেও অসুস্থ কিংবা মুমূর্ষু রোগীর জন্য রক্ত দাতা সংগ্রহ করে দিতে পারলে নিজের খুব ভালো লাগে। তিনি মনে করেন আজ আমরা এগিয়ে আসলে, একদিন পুরো সমাজ এগিয়ে আসবে। ভবিষ্যতে এই ধারাবাহিতা বজায় রেখে আরো স্বেচ্ছাসেবী তৈরী করতে চান তিনি।

TT/R

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ