,



গোলাপগঞ্জে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ভাড়াটিয়া দিয়ে সরকারী টেক্স তুলার অভিযোগ, আটক ৬

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি : সিলেটের গোলাপগঞ্জে বুধবারীবাজার ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাব উদ্দিন কামালের বিরুদ্ধে ভাড়াটিয়া দিয়ে সরকারী টেক্স তুলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার ৬জন ভূয়া টেক্স আদায়কারীকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (২৭অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েকদিন থেকে ৮জন লোক ইউপি চেয়ারম্যানের স্বাক্ষরযুক্ত নোটিশ বুধবারীবাজার ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিলি করে। রোববার বিকেলে ট্যাক্সের টাকা আদায় করতে এই ৬জন লোক বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে নানাভাবে চাপ প্রয়োগ ও  হয়রানী শুরু করে। এসময় এলাকাবাসীর সন্দেহ হলে এলাকাবাসী তাদের ধাওয়া দিয়ে ৬জনকে আটক করেন। এসময় ২জন পালিয়ে যায়। আটককৃতদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে তাদের চেয়ারম্যান মোস্তাব উদ্দিন কামাল ভাড়া করে এনেছেন বলে তারা জানায়। তারা আরো জানায়, আমাদের সাথে চেয়ারম্যান এমন চুক্তি করেছেন যে  আদায়কৃত ট্যাক্সের ২৫% তারা পাবে ও চেয়ারম্যান পাবেন ৭৫%।  বিষয়টি নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করে। তাৎক্ষণিক খবর পেয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার একদল পুলিশ তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

 

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান মোস্তাব উদ্দিন কামাল চেয়ারম্যান মস্তাব উদ্দিন কামাল ভাড়াটিয়া দিয়ে ট্যাক্স আদায়ের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন,  আমি তাদের ভাড়া করে আনিনি। তারা আমায় এসে বলেছে তারা সরকারী লোক ও ট্যাক্স কর্মকর্তা। আমি তাদের কাগজ পত্র জমা দিতে বলি। আপনার স্বাক্ষর যুক্ত কাগজ তারা কিভাবে বিলি করছে এমন প্রশ্নের জবাবে চেয়ারম্যান মোস্তাব উদ্দিন কামাল কোন উত্তর দিতে পারেন নি।

এদিকে আটকৃতদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের পর রাত ১০টায় গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্য মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, আটককৃতরা বলেছে চেয়ারম্যান মোস্তাব উদ্দিন কামাল হোল্ডিং টেক্স আদায়ের জন্যই তাদের নিয়োগ দিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে আলাপ করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ