,



মানব সেবায় নিয়োজিত মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন

মোঃ রুবেল আহমদ, গোলাপগঞ্জ : গোলাপগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নে যে কয়জন দানশীল ব্যাক্তি আছেন তাদের মধ্যে অন্যতম মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন। যিনি শুধুই সমাজ সেবা করে আছেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। সাদা মনের মানুষ হিসেবে পরিচিত মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন এমন একটি নাম। যিনি গোলাপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সকল প্রকার সমস্যা মোকাবেলায় এগিয়ে আসেন মানুষের সেবায়। মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন সব সময় অসহায় দরিদ্র মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। বন্য,খরা, প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ সকল সমস্যায় যাকে পাশে পাওয়া যায় তিনি হলেন মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন।

এছাড়া তিনি ২০১৪ সালের ৬ এপ্রিল একটি সামাজিক সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে ছিলেন। যার নাম দিয়ে ছিলেন মস্তফা চৌধুরী ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট। এই ট্রাষ্টের মুল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে অসহায় মানুষের সেবা করা। ঐ ট্রাষ্টটি উদ্বোধন করে ছিলেন বাংলাদেশ বিমানের তৎকালীন জেনারেল ম্যানেজার এম জেড আব্দুল্লাহ চৌধুরী। তিনি এই ট্রাষ্টের মাধ্যমে গোলাপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ান এবং সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন।

বিশেষ করে গোলাপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডের দরিদ্রদের মাঝে চাল, শীত মৌসুমে বস্ত্র, স্বাবলম্বী হওয়ার জন্য গরু-ছাগল, হাঁস-মুরুগী ও ঘর নির্মানের জন্য যাবতীয় নির্মান সামগ্রী বিতরণ করেন এই সমাজ সেবক। এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠির কন্যা সন্তানের বিয়ের জন্য তিনি তার দানশীলতার হাত বাড়িয়ে দেন এবং যেসব এলাকায় খাবার পানির সমস্যা সেসব এলাকায় ট্রাষ্টের মাধ্যমে নলকূপ স্থাপন করে দেন।

শিক্ষাবিস্তারের জন্য তিনি ১নং ফাজিলপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গেইট ও বাউন্ডারী দেয়াল নির্মাণ করে দেন যাতে শিক্ষার্থীরা নিরাপদে লেখাপড়া করতে পারে। গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে সম্মাননা প্রদান, শিক্ষা সামগ্রী বিতরণসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদেরকে ভর্তির জন্য সহায়তা প্রদান করে থাকেন মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন। এছাড়া প্রতিবছর বিশ্ব ইজতেমাগামী মানুষদেরকে আর্থিক সহযোগীতা প্রদান, সদর ইউনিয়নসহ বিভিন্ন উপজেলায় মসজিদ-মাদ্রাসা নির্মানেও সাধ্যমতো সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। তিনি ট্রাষ্টের মাধ্যমে প্রতিবছর বিভিন্ন মাদ্রাসার এতিম ছাত্রদের ইফতার করিয়ে থাকেন। সদর ইউনিয়নের ফাজিলপুর গ্রামের জনগন যাতে রাতে নিরাপদে বাড়ি ফিরে যেতে পারে সে জন্য তিনি ট্রাষ্টের অর্থায়নে গ্রামের সড়কে ল্যাম্পপোষ্ট স্থাপন করেছেন।

পাশাপাশি মিডিয়ার কাছেও তিনি অত্যান্ত জনপ্রিয় মুখ। তার নম্রতা ও আচরণ যুব সমাজের কাছে এখন আইডল। সদর ইউনিয়নের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সদস্যদেরকে খেলাধুলায় গুরুত্বপুর্ণ অবদান রাখার জন্য তিনি খেলাধুলার বিভিন্ন সরঞ্জাম প্রদান করে থাকেন। মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন এখন শুধু সদর ইউনিয়ন নয় গোলাপগঞ্জ উপজেলায় তিনি অত্যান্ত জনপ্রিয় একজন মানুষ।

সদর ইউনিয়নের দরিদ্র মানুষের সাথে কথা হলে তারা বলেন, মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন’র মতো সমাজ সেবক বেঁচে থাকুক যুগের পর যুগ। তার মতো জনদরদী, সমাজ সেবক, সাদা মনের মানুষ সব সময় জন্মায় না। আমরা তার সু-স্বাস্থ্য কামনা করি।

এদিকে মওদুদ হোসেন চৌধুরী সুমন বলেন, মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি। মানুষের জন্য কিছু করতে পারলে মনে শান্তি পাই। তাই সারা জীবন বিপদগস্থ্য মানুষের পাশে থাকতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ