,



সিলেটের গোলাপগঞ্জে আমন ধানের বাম্পার ফলন কৃষকের মুখে হাসির ঝিলিক

মোঃ রুবেল আহমদ, গোলাপগঞ্জ :  চলছে অগ্রহায়ণ। অগ্রহায়ণ মানে কৃষকের জন্য নতুন বার্তা। আর এ বার্তা যদি হয় বাম্পার ফলনের, ভরপুর আমন ধানের তাহলেতো আর কথাই নেই। কিন্তু বিগত কয়েক বছর থেকে আবহাওয়ার বিরূপ প্রভাবে কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্থ হলেও এবার তাদের মুখে ফুঠেছে হাসির ঝিলিক। গোলাপগঞ্জের উপজেলা জুড়ে এবার আমন ধানের বাম্পার ফলনে কৃষকদের ঘরে ঘরে যেন আনন্দের এক উৎসব।

উপজেলাজুড়ে খেতের জমিগুলোর যে দিকে চোখ যায় শুধু সোনালি পাকা আমন ধান। ইতিমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আমনের পাকা ধান কাটা শুরু হয়েছে, আবার কেউ কেউ আছেন ধান পাকার অপেক্ষায়। সোনালী ধান ঘরে তুলতে কৃষকরা বিভিন্ন প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন। সেই সঙ্গে কৃষাণীদের মুখেও দেখা যাচ্ছে হাসির ঝিলিক।

জানা যায়, গোলাপগঞ্জ উপজেলায় চাষাবাদের বেশিরভাগ জমি রয়েছে ভাদেশ্বর ইউনিয়নে। এখানকার প্রায় ৬০ ভাগ জমিতেই আউশ, আমন, বোরো ধান চাষের উপযোগী। এছাড়া উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়ন, লক্ষীপাশা, লক্ষণাবন্দ, বাঘা, গোলাপগঞ্জ সদর, ঢাকাদক্ষিন, আমুড়া, পৌর এলাকাসহ সব এলাকাতেই আমন ধানের চাষ হয়ে থাকে। এবার বন্যায় তেমন ক্ষতি না হওয়ায় ও সময় মতো বৃষ্টি হওয়ায় উপজেলার প্রতিটি এলাকাতেই আমন ধানের ভাল ফলন হয়েছে। কোথাও কোথাও অগ্রহায়ণ মাস আগমনের পূর্বেই এ জাতীয় ধান পাকলে কাটা শুরু হয়ে যায়। তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে কৃষকরা ধান কাটা শুরু করেছেন মাত্র ৪/৫ দিন আগে। অর্থাৎ অগ্রহায়ণ মাসের শুরুতে।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্য মতে জানা যায়, এবার গোলাপগঞ্জ উপজেলায় ১২ হাজার ৭ শ হেক্টর জমিতে আমন ধানের চাষ হয়েছে। উপজেলা কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা ও পরামর্শ প্রদানের ফলে কৃষকরা উন্নত জাতের বীজ সহজে সংগ্রহ করে তা কাজে লাগাতে সক্ষম হন। স্থানীয় জাতের ধান কালিজিরা, চিনিগুড়া, বিন্নিসহ বিভিন্ন জাতের ধান জমির প্রকার ভেদে চাষ করা হয়েছে। কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে সময়মত কৃষকদের মধ্যে সার ও বীজ বিতরণ করায় এবার ভাল ফসল উৎপন্ন হয়েছে।

এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার খায়রুল আমিন জানান, কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হয়েছে। কৃষকদের পরামর্শ দেওয়ায় এবার ভাল ফসলও হয়েছে। কৃষকদের পরিশ্রমে আজ কৃষি বিভাগ সফলতা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ