,



কুড়িয়ে পাওয়া টাকা ফিরিয়ে দিয়ে মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন জালাল আহমদ চৌধুরী

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি :  রাস্তায় পড়ে থাকা একটি মানি ব্যাগ কুড়িয়ে পান এক ব্যক্তি। মানি ব্যাগ খুলে দেখেন সেখানে কাড়িকাড়ি টাকা। নির্লোভী ও মহৎ হৃদয়ের অধিকারী এই ব্যক্তি সঙ্গে সঙ্গে টাকা ভর্তি ব্যাগ নিয়ে আসলেন নিজের ব্যবসা প্রতিষ্টান সম্রাট ভেরাইটিজ স্টোরে। সেখানে এসে তিনি ব্যাগে গচ্ছিত টাকা গুণে দেখেন ১ হাজার টাকার ৪টি নোট ও ৫০০ টাকার ১টি নোট সহ মোট ৫ হাজার টাকা রয়েছে! অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে, গত ০২ ফেব্রুয়ারী দুপুর ২ টার দিকে এমন ঘটনাই ঘটেছে। আর সেই নির্লোভী ও সততার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত দেখানো মানুষটির নাম হচ্ছে সাংবাদিক জালাল আহমদ চৌধুরী।
জানা যায় , গোলাপগঞ্জ পৌর শহরের চৌমুহনীতে অবস্থিত সম্রাট ভেরাইটিজ স্টোরের সত্বাধিকারী সাংবাদিক জালাল আহমদ চৌধুরী প্রতিদিনের ন্যায় দোকান খুলে ব্যাবসা পরিচালনা করছেন। দুপুর ১ টার দিকে টাকা ভর্তি ব্যাগটি কুড়িয়ে পান জালাল আহমদ চৌধুরী । তিনি মানি ব্যাগের ভিতরে অনেকগুলো টাকা ও বিভিন্ন ব্যাংকের চেক এবং জরুরী কাগজ দেখে মানি ব্যাগের প্রকৃত মালিকের সাথে যোগাযোগ করতে চেষ্টা করলে তিনি ব্যার্থ হন। পরে বিভিন্ন লোকজনদের সাথে যোগাযোগ করে ও তাদের সহযোগিতায় মানি ব্যাগের প্রকৃত মালিকের সাথে যোগাযোগ করতে সক্ষম হন।
তিনি মুঠোফোনে যোগাযোগ করে প্রমাণ সাপেক্ষে মানি ব্যাগের প্রকৃত মালিক গোলাপগঞ্জ উপজেলার আছিরগঞ্জ বাজারের ইমা ট্রেডার্সের সত্বাধিকারী  মুহিবুর রহমান ফারককে মানি ব্যাগ ভর্তি টাকা গুলো ফিরিয়ে দেন।
এতোগুলো টাকা কিভাবে রাস্তায় ফেলে গেলেন প্রশ্নে ব্যবসায়ী মুহিবুর রহমান ফারক জানিয়েছেন, ‘দোকান বন্ধ করে ওই দিন ডাক্তার দেখাতে সিলেটের উদ্দেশ্য যাওয়ার পথে ব্যাগটি রাস্তায় পড়ে যায়। সিলেটে গিয়ে দেখি পকেটে ব্যাগটি নেই। রাস্তায় অনেক খোঁজাখুজি করেছি। কিন্তু কোথাও খুঁজে পাইনি। ’
তিনি আরও বলেন, টাকাগুলো এভাবে ফিরে পাবো ভাবিনি। আজ জালাল চৌধুরীর মতো মানুষ আছে বলেই আমি মানি ব্যাগটি ফিরে পেয়েছি। আমি হৃদয় থেকে জালাল চৌধুরীকে ধন্যবাদ জানাই।
মানি ব্যাগ ফিরিয়ে দেয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন গোলাপগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক মোঃ রুবেল আহমদ, দৈনিক সিলেটের দিনকাল পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার ফাহাদ হোসাইন, সাংবাদিক সুলতান আবু নাসের।
টিটি/আর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ